স্টাফ রিপোর্টারঃ-
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে উৎসব মুখর পরিবেশে ২৪৩ মন্ডপে শারদীয়া দুর্গা পুঁজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আগামীকাল শনিবার মহালয়ার মধ্য দিয়ে পূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হচ্ছে। মুল পূজা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৪ অক্টোবর থেকে। সনাতন ধর্মাবলম্ববীদের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয়া দুর্গা পুঁজা। আজ শুক্রবার মির্জাপুর উপজেলার উদযাপন পরিষদের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা সরকার হিতেশ চন্দ্র পুলক জানিয়েছেন, এ বছর টাঙ্গাইল জেলা তথা বাংলাদেশের মধ্যে মির্জাপুর উপজেলায় সর্বাধিক ২৪৩ মন্ডপে শারদীয়া দুর্গা পুঁজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এখন মন্ডপে মন্ডপে চলছে প্রতিমায় শেষ রং তুলির আঁচর। উপজেলা সদর, পৌরসভা ও বিভিন্ন ইউনিয়নের বিভিন্ন ক্লাব ও পাড়া-মহল্লার মন্ডপে মন্ডপে প্রতিমা তৈরীর কারীগরগন(দেউরীগন) দিন রাত প্রতিমাগুলোতে শেষ সময়ের রং তুলিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। প্রশাসন থেকেও মন্ডপে মন্ডপে নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা।
মির্জাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়, মির্জাপুর থানা ও উপজেলা পুঁজা উদযাপন পরিষদের সদস্যগন জানান, এ বছর মির্জাপুর পৌরসভার ৯ টি ওয়র্ডে-৪৪টি এবং জামুর্কি ইউনিয়নের ৩১ টি মন্ডপে সবোঁচ্চ সংখ্যক পুঁজা অনুষ্ঠিতত হচ্ছে। এছাড়া উপজেলার মহেড়া ইউনিয়নে-১০, ফতেপুর ইউনিয়নে-১৩টি, বানাইল ইউনিয়নে-২০ টি, আনাইতারা ইউনিয়নে-৮ টি, ওয়ার্শি ইউনিয়নে-১৬ টি, ভাদগ্রাম ইউনিয়নে-২৮ টি, ভাওড়া ইউনিয়নে-৩ টি, বহুরিয়া ইউনিয়নে-১১ টি, লতিফপুর ইউনিয়নে-১৯ টি, গোড়াই ইউনিয়নে-২০ টি, আজগানা ইউনিয়নে-৩ টি এবং তরফপুর ইউনিয়নে-৭ টিসহ ২৪৩ মন্ডপে শারদীয়া দুর্গা পুঁজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বাঁশতৈল ইউনিয়নে এ বছর কোন মন্ডপে শারদীয়া দুর্গা পুঁজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। ২০১৮ সালে মির্জাপুরে পুঁজা মন্ডপ ছিল ২৩৩ টি। এ বছর ১০ টি মন্ডপে বেশী পুঁজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সবচেয়ে বেশী মন্ডপ তৈরী হচ্ছে পৌরসভার ৯ টি ওয়ার্ডের ৪৪ টি। মির্জাপুর সাহাপাড়া গ্রামের দানবীর রনদা প্রসাদ সাহার নিজ গ্রামে তৈরী হচ্ছে দৃষ্টি নন্দন পুঁজা মন্ডপ। এই মন্ডপ পরিদর্শনে বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কুটনৈতিক, রাষ্ট্রদুত, মন্ত্রী পরিষদের গুরুত্বপুন মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী, এমপি, সচিবসহ প্রশাসনের উচ্চ পদস্থ্য কর্মকর্তাগন আসবেন বলে কুমুদিনী পরিবারের সদস্যগন জানিয়েছেন। টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসন ও জেলা পুলিশ সুপার পুঁজা উপলক্ষে ইতিমধ্যে মির্জাপুর সাহাপাড়া ও কুমুদিনী কমপ্লেক্্ের বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থাগ্রহন করেছেন বলে জানিয়েছেন।
মির্জাপুর উপজেলা পুঁজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সরকার হিতেশ চন্দ্র পুলক বলেন, ধর্ম যার যার, উৎসব সভার। এ বছর টাঙ্গাইল জেলা তথা বাংলাদেশের মধ্যে মির্জাপুর উপজেলায় সর্বোচ্চ সংখ্যক ২৪৩ মন্ডপে শারদীয়া দুর্গা পুঁজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর মধ্যে বিভিন্ন ক্লাবের উদ্যোগে সার্বজনিন ভাবে পুঁজা ২৩৩ টি এবং ব্যক্তি উদ্যোগে ১০ টি মন্ডপে পুঁজা হচ্ছে। স্থানীয় রাজিৈনত নের্তবৃন্দসহ উপজেলা ও জেলা প্রশাসন থেকে প্রতিটি মন্ডপে আর্থিক সহযোগিতাসহ নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহন করেছেন।
এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার ওসি (তদন্ত) মো. মোশারফ হোসেন বলেন, এ বছর মির্জাপুর উপজেলায় সর্বোচ্চ সংখ্যক ২৪৩ মন্ডপে শারদীয়া দুর্গা পুঁজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ২৩৩ টি সার্বজনিন এবং ১০ টি ব্যক্তি উদ্যোগে। প্রতিটি মন্ডপে পুলিশ, আনসারসহ বাড়তি নিরাপত্তার ব্যবস্থা প্রশাসন থেকে নেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here