স্টাফ রিপোর্টারঃ-
শারদীয় দুর্গা পুঁজা উপলক্ষে অতিরিক্ত মদ্য পানে সাবেক পৌর কাউন্সিলরসহ দুই জনের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মদ্য পানে গুরুতর অসুস্থ্য চার জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভর্তিকৃতদের মধ্যে তিন জনের অবস্থা খুবই আশংকা জনক বলে হাসপাতালের চিকিৎসকগন জানিয়েছেন। গুরুতর অবস্থায় এক জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার পৌরসভার পোষ্টকামুরী পালপাড়া ও মির্জাপুর সাহাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।
আজ শুক্রবার মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতাল সুত্র এবং এলাকার বাসীর মধ্যে কয়েকজন বাসিন্দা জানান, শারদীয় দুর্গা পুঁজা উপলক্ষে মহা নবমী ও বিজয়া দশমীর রাতে মির্জাপুর সাহাপাড়া গ্রামের সাবেক পৌর কাউন্সিলর রিপন চক্রবর্তী (৪৬), পোষ্টকামুরী পালপাড়া গ্রামের শ্যামপদ পাল ওরফে বিকাশ পদ পাল(৩০), সংকর পাল (৪০), মন্তোষ পাল (৩৪), দিপংকর পাল (২৫) এবং মির্জাপুর বাজারের বাপ্পি কর্মকার (৩০) সহ ২০-২৫ জন যুবক অতিরিক্ত মদ্য পান করে। মদ্য পান করে তারা অসুস্থ্য হয়ে পরে। মির্জাপুর সাহাপাড়া গ্রামের সাবেক পৌর কাউন্সিলর রিপন চক্রবর্তীকে বিজয়া দশমীর পরের দিন বুধবার সকালে মদ্য পানে অসুস্থ্য অবস্থায় কুমুদিনী হাসপাতালে আনার পথে তিনি মারা যান।
এদিকে পোষ্টকামুরী পালপাড়া গ্রামের শ্যামপদ পাল ওরফে বিকাশ পাল(৩০), সংকর পাল (৪০), মন্তোষ পাল (৩৪), দিপংকর পাল (২৫) এবং মির্জাপুর বাজারের বাপ্পি কর্মকারকে (৩০) গতকাল বৃহস্পতিবার কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তির পর শ্যামপদ পাল ওরফে বিকাশ পাল(৩০) বৃহস্পতিবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। বাপ্পি কর্মকারের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেলে স্থানান্তর করা হয়েছে। কুমুদিনী হাসপাতালে দুই জনের অবস্থা আশংকা জনক বলে জানা গেছে।
অপর দিকে গত ১৫ আগস্ট মির্জাপুর আন্ধরা ঘোষপাড়া গ্রামের রিপন ঘোষ(৫০) অতিরিক্ত মদ্য পানে মারা গেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এলাকার মাদক ও জুয়ার আড্ডায় তার বন্ধুরা মিলে মদের মজমায় মাদক ব্যবসায়ী ও জুয়াড়িরা মিলে টাকার লোভে মদের সঙ্গে বিষাক্ত কিছু মিশিয়ে পান করিয়ে তাকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
গত বছর ২০১৮ সালের শারদীয় দুর্গা পুঁজায় মির্জাপুর পোষ্টকামুরী পালপাড়া গ্রামে অতিরিক্ত মদ্যপানে রনজিৎ পাল ও উত্তম পাল নামে দুই যুবক মারা যায়। পোষ্টকামুরী, আন্ধরা, সরিষাদাইর, মির্জাপুর সাহাপাড়া, কুতুব বাজার, মির্জাপুর বাজার, বাইমহাটি, ও কুমারজানি এলাকায় মাদকের আখড়ায় পরিনত হয়েছে। মাদকের আখড়ায় অতিরিক্ত মদ্য পানে একের পর এক মৃত্যুর ঘটনা ঘটলেও কোন মামলা না হওয়ায় পুলিশ কোন ব্যবস্থা নিতে পারছে না জানা গেছে।
এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার ওসি (তদন্ত) মো. মোশারফ হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, অতিরিক্ত মদ্য পানে দুই জন মারা গেছে এ বিষয়ে কেউ লিখিত কোন অভিযোগ করেনি। তবে এলাকায় খোঁজ খবর নিয়ে তদন্ত সাপেক্ষে এ বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here