ad cb under

স্টাফ রিপোর্টারঃ-
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে সরিষাদাইর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুক্তি সাহা ও স্বর্ন ব্যবসায়ী শ্যামল কুমার সাহার বাসার গ্রিল কেটে দুর্বৃত্তরা হানা দিয়ে নগদ টাকাসহ ৫০ ভরি স্বর্ন লুটে নিয়েছে। দুর্বত্তরা হানা দিয়ে বাসায় ঢুকে আলমারি ও সুকেজের ড্রয়ার ভেঙ্গে ৫০ ভরি স্বর্ন ও নগদ টাকা লুটে করেছে বলে মুক্তি সাহা এবং স্বর্ন ব্যবসায়ী শ্যামল কুমার সাহা অভিযোগ করেছেন। কয়েক দিনের ব্যবধানে বড় ধরনের দুই চুরির ঘটনায় এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পরেছে। ঘটনার পর মুক্তি সাহা বাদী হয়ে মির্জপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন। আজ বৃহস্পতিবার ভোর রাতে মির্জাপুর উপজেলা সদরের পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের মির্জাপুর সাহাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।
আজ বৃহস্পতিবার মুক্তি সাহা জানান, তার স্বামী শ্যামল কুমার সাহা রাজধানী ঢাকার নিউ মার্কেটে জুয়েলারীর দোকানে স্বর্ন ব্যবসা করেন। প্রতি দিনের মত বাসার মুল গেইটে কেচি গেইটে তালা এবং দরজা জানালা বন্ধ করে বাসার লোকজন ঘুমাতে যান। সংঘ বদ্ধ চোরের দল গভীর রাতে বাসার মুল গেটের তালা না ভেঙ্গে একটি কক্ষের জানালার গ্রিল কেটে কক্ষে ঢুকে একে একে প্রতিটি রুমের আলমারী ও সুকেজের ড্রয়ার ভেঙ্গে নগদ টাকা ও ৫০ ভরির স্বর্ন লুটে নিয়ে চম্পট দেয়। সকালে বাসার লোকজন কয়েকটি রুমে তছনছ ও গ্রিল ভাঙ্গা দেখে ভয়ে আশপাশের লোকজনদের খবর দেয়। তারা ঘটনাটি দেখে মির্জাপুর থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে মির্জাপুর থানার ওসি তদন্ত মো. গিয়াস উদ্দিনসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
এদিকে ২০-২৫ দিন পুর্বে একই কায়দায় সাহাপাড়া আন্ধরা গ্রামের কালু সাহার বাসায় গ্রিল কেটে চুরির ঘটনা ঘটেছে। কালু সাহার বাসায় থেকেও নগদ টাকাসহ ২০-২৫ ভরি স্বর্ন লুট হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন। কয়েক দিনের ব্যবধানে পর পর চুরির ঘটনায় সংখ্যালঘু অধ্যোজিত সাহাপাড়া ও আন্ধরা গ্রামে আতংক ছড়িয়ে পরেছে।
এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. সায়েদুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, চুরির ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানায় মামলা হয়েছে। অপরাধীদের ধরতে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে চিরুনী অভিযান শুরু করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here