একবছর আটকে রেখে গৃহবধূকে ধর্ষণ : যুবক গ্রেফতার

0
76

নারায়ণগঞ্জে বন্দর উপজেলায় গৃহবধূ নাসরিনকে (২০) অপহরণের পর এক বছর আটকে রেখে ধর্ষণের ঘটনায় অপহরণকারী বদরুল আলমকে (৩২) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় অপহৃত গৃহবধূকেও উদ্ধার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে বন্দর উপজেলার মালিবাগ এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপহরণকারীকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে বুধবার ওই গৃহবধূর মামা মাজহারুল ইসলাম বাদী হয়ে অপহরণকারী বদরুল আলমসহ অজ্ঞাতনামা আরো তিন সহযোগীর বিরুদ্ধে বন্দর থানায় মামলা দায়ের করে।

গ্রেফতার বদরুল আলম ময়মনসিংহ জেলার হালুয়াঘাট থানার আমতৈল এলাকার মোফাজ্জল খাঁর ছেলে। আর উদ্ধার গৃহবধূ নাসরিন বন্দর উপজেলার মালিবাগ এলাকার নূর উদ্দিন মিয়ার মেয়ে।

পুলিশের সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালে সোনারগাঁও উপজেলার বাগবাড়ী এলাকার তাহের আলী মিয়ার ছেলে রবিউল ইসলামের সঙ্গে বন্দর উপজেলা মালিবাগ এলাকার নূর উদ্দিন মিয়ার মেয়ে নাসরিন আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের ২৫ দিন পর নাসরিন বাবার বাড়িতে আসে। সেখান থেকে মামার বাড়িতে বেড়াতে যায়। এ সময় বদরুল ওই গৃহবধূকে নানা ভাবে উত্ত্যক্তসহ প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল।

পরে ২০১৭ সালের ১ ফেব্রুয়ারি বিকেলে নাসরিন তার বাসা থেকে একই উপজেলার মদনপুর মার্কেটে যাওয়ার পথে জাঙ্গালস্থ সুন্দরবন পেট্রোল পাম্পের সামনে এলে বদরুলসহ অজ্ঞাত ২-৩ জন সহযোগী তাকে জোরপূর্বক একটি প্রাইভেটকারযোগে অপহরণ করে ঢাকার উত্তরায় একটি বাড়িতে আটক রাখে।

এ সময় বদরুল নাসরিনকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে গত বুধবার নাসরিনকে নিয়ে বদরুল ফের মালিবাগ গেলে ওই সময় পুলিশ কৌশলে অপহরণকারী বদরুলকে গ্রেফতারসহ অপহৃত গৃহবধূকে উদ্ধার করে।

Loading...
(Visited 20 times, 1 visits today)