গাছে গাছে বিয়ে!

0
208
Loading...

এটি কাল্পনিক নয়, বাস্তব। বেশ ঘটা করে, গান বাজনা ও উৎসাহের মাধ্যমেই দেয়া হলো গাছে গাছে বিয়ে। গাছেরাও পেল নতুন সংসার। গতকাল শনিবার রাজধানীর শেরে বাংলানগরে অবস্থিত গ্রিন সেভারসে এ বিয়ের আয়োজন করা হয়।

পরিবেশ অধিদফতরের দক্ষিণ গেটে গ্রিন সেভারসের কার্যালয়। যৌথভাবে বিয়ের আয়োজন করেন গাছের ডাক্তার খ্যাত আহসান রনি এবং বেনাউল দ্যা পাইপার খ্যাত হাসান বেনাউল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিবেশ অধিদফতরের ডিজি ড. সুলতান আহমেদ ও চিত্রনায়ক রিয়াজ।

হাসান বেনাউল ইসলাম বলেন, ‘বেনাউল দ্যা পাইপার নামে আমার একটা ফেসবুক পেজ আছে। সেখানে আমি কিছু আইডিইয়া শেয়ার করি। পেজে গাছে গাছে বিয়ে দেয়ার একটা আইডিয়া শেয়ার করেছিলাম। আমরা যেভাবে সবুজ ধ্বংস করছি, তাতে আমরা এখন যদি সবুজটাকে সংরক্ষণ না করি।’

তিনি বলেন, ‘সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করতে করতে আমরা একজনের থেকে অন্যজন আলাদা হয়ে যাচ্ছি। হয়ত অনলাইনে কথা হয়। কিন্তু সরাসরি দেখা করার বা কথা বলার সুযোগটা হয় না। এখন আমরা যদি একটা গাছের সঙ্গে অন্য একটা গাছকে বিয়ে দিই। তাহলে আপনি সেই গাছটা দেখতে যাবেন। সঙ্গে ওই পরিবারের সঙ্গে নিয়মিত দেখা হবে কথা হবে। একটা বন্ধন তৈরি হবে, গাছগুলোও একটা বিশেষ পরিচর্যা পাবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘এটা এক ধরনের পাগলামি। মানুষ গাছেকে যত্ন করে না, পরিচর্যা করে না। তাই গাছকে বিয়ে দিয়ে দিচ্ছি। তখন একটা দায়িত্ববোধ তৈরি হবে। আমরা নিকাহনামার মাধ্যমে কিছু শর্ত জুড়ে দিচ্ছি। যেমন, যত্ন করা, পরিচর্যা করা, গাছের অসুখ হলে ঔষধ দেয়া। আর যখন এ কাজগুলো করা হবে, তখন গাছ ফুল দেবে, ফল দেবে। গাছ যখন ফুল, ফল দেবে তখন গাছের প্রতি একটা ভালোবাসা তৈরি হবে।’

আহসান রনি আশা করেন, তাদের এ উদ্যোগ সফলতা পাবে। বৃদ্ধি পাবে গাছের বংশ বিস্তার ও পরিচর্যার হার।

বিয়ের অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার আগে থেকে গাছ পাগলরা একে একে তাদের গাছ নিয়ে আসিতে শুরু করেন। বিয়ে বাড়িতে বড় কনে বরণ করার মতো করেই গাছ ও তাদের মালিকদের বরণ করা হয়। এ সময় ব্যান্ড পার্টি বাজায় বিয়ের গানের বাজনা। একে একে আট জোড়া গাছ এসে পৌঁছায় বিয়ের জন্য।

প্রথমেই আহসান রনির ক্রিসমাস গাছের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে দেয়া হয় হাসান বেনাউল ইসলাম এর লিলি গাছের। এ বিয়েতে ক্রিসমাস গাছের পক্ষে সাক্ষী ছিলেন পরিবেশ অধিদফতরের ডিজি ড. সুলতান আহমেদ। লিলি গাছের পক্ষে সাক্ষী ছিলেন চিত্রনায়ক রিয়াজ। মালা বদল ও গাছ নিজ নিজ গাছের পক্ষে কামিন নামায় স্বাক্ষর করার মধ্য দিয়ে বিয়ে সম্পন্ন করা হয়।

অমৃতবাজার/জয়

(Visited 67 times, 1 visits today)