মির্জাপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে এক গৃহবধূর আত্নহত্যা

শামীম মিয়া(স্টাফ রিপোর্টার)

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে।নিহতের নাম মোছা:রোজিনা বেগম(২২)।তার স্বামীর নাম সোহেল মিয়া(২৭)। সোহেল মিয়া উপজেলার ৮নং ভাতগ্রাম ইউনিয়নের বুড়িহাটী মধ্যপাড়া গ্রামের মোঃ এলাহী মিয়ার ছেলে।গতকাল সোমবার রাত আনুমানিক সাড়ে নয়টার সময় উপজেলার পৌর সদরের আন্দরা গ্রামের মোঃ মতিয়ার রহমানের বাড়িতে এ ঘটনাটি ঘটে।উল্লেখ্য যে,সোহেল ও তার স্ত্রী দুজন ঐ বাড়িতে ভাড়া থাকতো।এলাকাবাসী ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, গতকাল মতিয়ার রহমানের বাড়িতে ইফতারের আয়োজন করা হয়।ইফতার শেষে তার স্বামী কুতুব বাজারে যায় এবং বাড়ি ফিরে দেখতে পায় দরজা খোলা অবস্থায়ই তার স্ত্রীকে ফ্যানের সাথে ঝুলতে দেখা যায়।ঘটনাটির কথা তাৎক্ষণিক ছড়িয়ে পড়লে এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়।মেয়ের বাবা মোঃ রশিদ মোল্লা অভিযোগ করে বলেন,আমার মেয়ে গত কয়েকদিন আগে আমাকে ফোনে বলেছে বাবা আমার স্বামী দিন দিন কেমন যেনো পাল্টে যাচ্ছে।ইদানিং যাবৎ সে দেরি করে বাড়ি ফিরে আবার কোনো কোনো দিন রাত,১টা ২টাও বাজে।সে নাকি কোন এক মেয়ের সাথে ফোনে আলাপ করে।
এ বিষয়ে,মির্জাপুর থানা ইন্সপেক্টর তদন্ত শ্যামল কুমার দত্ত সাংবাদিকদের জানান,খবর পেয়ে মঙ্গলবার লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে।লাশটি ময়না তদন্তের জন্য টাঙ্গাইল মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং নিহত গৃহবধূর স্বামীকে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।নিহতের স্বামী কি পরকীয়া প্রেম করে নাকি এমন তথ্য জানতে চাইলে ইন্সপেক্টর তদন্ত বলেন,তার ফোনের কল লিস্ট এবং রেকর্ড চেক করে এবং তার জবানবন্দি নেয়ার পরই সঠিক ঘটনাটি বলা যাবে এবং নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে যদি কোনো ধরণের অভিযোগ পাওয়া যায় সে ক্ষেত্রে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Loading...
(Visited 687 times, 77 visits today)