সুন্দর থাকতে কুকুরের মূত্র পান করেন এই তরুণী! (ভিডিও)

সুন্দর হতে গেলে রীতিমতো কষ্ট সইতে হয়। ব্যায়াম করে রোগা হওয়া, খাবারদাবার নিয়ে বাছাবাছি, তার পরেও থেকে যাচ্ছে ম্যানিকিওর, পেডিকিওর, স্পা ইত্যাদি। তাতেও কি সুন্দর হয়ে ওঠা সম্ভব হয়? থেকে যায় ব্রণ, মেছতা, খুসকি ইত্যাদি।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘মিরর’-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্রণ নিয়ে হিমশিম খাওয়ার দিন শেষ বলে দাবি করেছেন এক অজ্ঞাতনামা মার্কিন সুন্দরী।

সম্প্রতি ইউটিউবে এমন এক ভিডিও আপলোড করেছেন তিনি। তার আপলোড করা ভিডিও নিয়ে উত্তাল ওয়েব-জগৎ। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ওই সুন্দরী তার পোষা কুকুরের মূত্র সংগ্রহ করছেন একটি প্লাস্টিকের গ্লাসে। তার পরে সেই মূত্র পান করছেন।

তার দাবি, কুকুরের প্রস্রাব ব্রণ থেকে মুক্তির সব থেকে ভালো দাওয়াই।

তিনি জানিয়েছেন, আপনাদের অনেকেই জানতে চান আমার রূপের রহস্য। জানতে চান আমার ত্বকের জৌলুসের গোপন কথা। এই ভিডিও সেসব প্রশ্নের জবাব।

কুকুরের প্রস্রাব পানের পরে ওই তরুণী জানিয়েছেন, এই কাণ্ডটি করে তার অবসাদও দূর হয়ে গিয়েছে।

তিনি বলেন, কুকুরের প্রস্রাবে ভিটামিন এ, ভিটামিন ই, ক্যালসিয়াম প্রভৃতি পর্যাপ্ত পরিমাণে রয়েছে। এ দিয়ে নাকি ক্যানসারও সারানো সম্ভব।

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ইউরোপ্যাথির প্রচলন রয়েছে। ভারতে স্বমূত্র পান বা ‘শিবাম্বু চিকিৎসা’ একটা চর্চার বিষয়।

কিন্তু ‘কুকুর-মূত্র’ পান নিয়ে মনে হয় এটিই প্রথাম। বার্মিংহামের বিএমআই প্রায়রি হাসপাতালের কনসালটেন্ট ইউরোলজিস্ট জাকি আলমাল্লাহ্ জানিয়েছেন, মূত্র একটি বর্জ্য পদার্থ। তার যদি অতই গুণ থাকবে, তা হলে শরীর কেন তাকে ত্যাগ করবে?

Loading...
(Visited 221 times, 1 visits today)